Breaking News

এই সাধারণ জিনিসেই বদলায় জীবন, ফটকিরির একটা টুকরোই পাল্টে দিতে পারে ভাগ্য

সবার জীবনই নানা সমস্যায় ভরা। কেউ কেউ সমস্যা নিয়ে রীতিমতো জর্জরিত থাকেন। এমন পরিস্থিতিতে এই টোটকা মেনে দেখতেই পারেন। বাস্তুশাস্ত্রের এই বিধান কাজে লাগতেও পারে।বিভিন্ন জনের ক্ষেত্রে বিভিন্ন গ্রহ শুভ ও অশুভ প্রভাব বিস্তার করে বলেই বিশ্বাস। তেমনই অশুভ বাস্তুর প্রভাবেও জীবনে উন্নতি ও বাধার সৃষ্টি হয় বলে দাবি বাস্তুশাস্ত্রের। জ্যোতিষ ও বাস্তুশাস্ত্রকারদের অনেকের মতে, সামান্য ফটকিরিও নেতিবাচক বা অশুভ শক্তির প্রভাব কমিয়ে, বাধা কাটিয়ে জীবনে উন্নতির পথ প্রশস্ত করে।জেনে নেওয়া যাক ফটকিরি ব্যবহার করে কী ভাবে সমস্যার সমাধান সম্ভব বলে জানিয়েছে বাস্তুশাস্ত্র—

১) আপনি যথাসাধ্য পরিশ্রম করেন। কিন্তু তাতেও ভাগ্যের সাহায্য পান না। এমনটা হলে, একটি কালো কাপড়ের মধ্যে এক টুকরো ফটকিরি বেঁধে দরজায় ঝুলিয়ে রাখতে পারেন। এর ফলে নেতিবাচক শক্তির প্রভাব কমিয়ে ভাগ্যের বিকাশ ঘটে বলে বিশ্বাস।

২) আরও পথ বলছে বাস্তুশাস্ত্র। স্নানের ঘরে একটি বাটিতে ফটকিরি রেখে দিন। প্রতি মাসে একবার করে ফটকিরি বদলে দিতে হবে। বাড়ির মধ্যে থাকা নেতিবাচক শক্তিকে ওই ফটকিরি শুষে নেয় বলেই বিশ্বাস।

৩) তৃতীয় পদ্ধতিতে ফটকিরির একটা বড় টুকরো গুঁড়ো করে নিন। সেটা ঘরের বিভিন্ন কোনায় ছড়িয়ে রাখুন। এর ফলে ঘরে কোনও রকম অশুভ বা নেতিবাচক শক্তির প্রভাব পড়বে না বলে বিশ্বাস।

৪) আপনি যদি ‘নজর লাগা’য় বিশ্বাসী হন তবে পা থেকে মাথা পর্যন্ত সাত বার একটি ফটকিরি ঘষতে পারেন। এর পরে ওই ফটকিরির টুকরোটি আগুনে পুড়িয়ে ফেলতে হবে। এর ফলে কারও নজর লেগে থাকলে তা থেকে মুক্তি মেলে বলে বিশ্বাস।

৫) অনেকেই ঘুমের মধ্যে ভয়ঙ্কর স্বপ্ন দেখেন। বলা হচ্ছে, শোওয়ার সময়ে মাথার পাশে এক টুকরো ফটকিরি রাখলে ভাল ফল মেলে। এর ফলে চারপাশের নেতিবাচক শক্তিকে ফটকিরি টেনে নেয় বলে বিশ্বাস। আর তার জন্যই ঘুমে ব্যাঘাত ঘটে না।

About admin

Check Also

রাতে রুটি খান ? তাহলে এই বিষয় গুলি মাথায় রাখবেন নাহলে বিপদে পড়তে হবে ।

রুটি মানুষের গুরুত্বপূর্ণ প্রয়োজনীয় বস্তু। কারণ ক্ষুধা মানুষের কাছ থেকে ঠিক এবং খারাপের পার্থক্য কেড়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *