Breaking News

শ্যাম্পুর সঙ্গে চিনি মেশান, এরপর মুহূর্তেই চমক !

চিনি এই দ্রব্যটি সম্পর্কে কারোরই অজানা নয়। দৈনন্দিন জীবনে চিনি রান্নার কাজে লাগে। বিশেষত মিষ্টি বানানোর জন্য চিনি একটি মুখ্য উপাদান। চিনি দিয়ে তৈরি হওয়া খাবারগুলি খেতে সুস্বাদু হলেও খাবারগুলি শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক। অত্যাধিক পরিমানে মিষ্টি জাতীয় জিনিস খেলে বিভিন্ন ধরণের রোগ হতে পারে, যেমন- ডায়বেটিস, সুগার ইত্যাদি।

কিন্তু এক বিশেষজ্ঞ পরীক্ষা করে দেখেছেন, চিনি শরীরের জন্য ক্ষতিকারক হলেও এটি চুলের সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্য অনেক সাহায্য করে। ব্রিটেনের বিখ্যাত চর্মরোগ বিশেষজজ্ঞ ডা. ফ্রান্সেসকা ফুসকো ওয়েক্সলার বলেন যে, শ্যাম্পু করার সময় যদি শ্যাম্পুর সাথে চিনি মিশিয়ে ব্যবহার করা যায় তাহলে চুল খুব মজবুত, ঘন ও পরিষ্কার থাকবে। ফলে চুল আগের থেকে বেশি শাইনি এবং দেখতে সুন্দর লাগবে। সাধারণ শ্যাম্পু ব্যবহার করার পর দেখবেন চুলে কোনো শাইনি ভাব আসবে না। যদি চিনি মিশিয়ে শ্যাম্পু ব্যবহার করেন তাহলে দেখতে পারবেন চুল সুন্দর, পরিষ্কার এবং আদ্রতা সম্পন্ন হয়ে গেছে।

চুলের গ্রোথ কিভাবে বৃদ্ধি হবে তা নিয়ে আরও অনেক বিশেষজ্ঞ পরীক্ষা করেছেন। এই বিষয়ে আর এক বিশেষজ্ঞ মারি ক্লেয়ার বলেছেন, যদি নিয়মিত শ্যাম্পুর সাথে চায়ের চামচের মতো এক চামচ চিনি মিশিয়ে তা যদি মাথায় ধীরে ধীরে ম্যাসাজ করা যায় তাহলে মাথার থেকে খুশকি দূর হয়ে যাবে।

চিনি এমন একটি উপাদান যার নেগেটিভ দিক ও পজিটিভ দিক ২টই আছে। শুধুমাত্র মিষ্টি বানানো আর চুলের গ্রোথ বৃদ্ধির জন্যই এই উপাদানটি প্রয়োজন হয়না। এই উপাদানটি ত্বকের নানা রকমের সমস্যার সমাধান করতেও সাহায্য করে। নিয়মিত যদি চিনি দিয়ে মুখে ম্যাসাজ করতে পারেন তাহলে ডার্ক সার্কেল, কালো স্পট,ওপেন স্পোরস ইত্যাদি সমস্যা মিটে যাবে।

এই হল চিনির উপকারিতা আপনারা অবশ্যই এই টিপসগুলি পালন করুন কদিনের মধ্যেই দেখতে পারবেন চুল এবং ত্বক উভয়েরই অনেক পরিবর্তন হয়েছে।

About admin

Check Also

রাতে রুটি খান ? তাহলে এই বিষয় গুলি মাথায় রাখবেন নাহলে বিপদে পড়তে হবে ।

রুটি মানুষের গুরুত্বপূর্ণ প্রয়োজনীয় বস্তু। কারণ ক্ষুধা মানুষের কাছ থেকে ঠিক এবং খারাপের পার্থক্য কেড়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *