Breaking News

এই পাঁচটি জিনিস সূর্যাস্তের পর কাউকে দান করলে আপনার জীবনে নেমে আসবে ঘোর বি’পদ।

“মানুষ” হল সামাজিক জীব। তাই প্রয়োজনে একে-অপরের পাশে দাঁড়ায়। তাই পাড়ার প্রতিবেশীরা কিছু চাইলে আপনারা তা সহজেই দিয়ে দেন এবং এই নিত্য প্রয়োজনের জিনিস আদান-প্রদান দুপক্ষের মধ্যে চলে আসছে।জ্যোতিষ শাস্ত্র অনুযায়ী, এমন কিছু জিনিস রয়েছে যেগুলি সূর্যাস্তের পর দান করলে তা আপনার এবং আপনার পরিবারের জন্য বিপদজনক।বিপদের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য সূর্যাস্তের পর কতগুলো জিনিস আছে যেগুলি বাইরের লোককে দান করবেন না। আসুন জেনে নেওয়া যাক সেই জিনিস গুলি কি কি??

(১)”হলুদ” আপনারা সকলেই জানেন হলুদের বিশেষত্ব। সাধারণত আপনারা রান্নার কাজের জন্য হলুদ ব্যবহার করেন। শুধুমাত্র তাই নয়, হলুদের সাথে বৃহস্পতি গ্রহের সম্পর্ক রয়েছে এবং বৃহস্পতি গ্রহ হল সৌভাগ্যের প্রতীক। তাই সূর্যাস্তের পর কাউকে হলুদ দান করলে আপনার বাড়িতে বৃহস্পতি গ্রহের প্রভাব দুর্বল হয়ে যেতে থাকবে। ফলে আপনার দুর্ভোগ এবং আর্থিক অনটন বাড়তে থাকবে।

(২)ঝাড়ু:-সূর্যাস্তের পর কাউকে ঝাড়ু বা ঝাঁটা দান করবেন না। ঝাঁটা যেমন আপনাদের বাড়ির যাবতীয় নোংরা আবর্জনা দূর করে বাড়িকে পরিষ্কার রাখে তেমনি বাড়িতে প্রচুর পরিমানে পজিটিভ এনার্জি ও বৃদ্ধি পায়। কিন্তু আপনি যদি সূর্যাস্তের পর বাড়িতে ঝাড়ু দেন বা কাউকে ঝাঁটা দান করেন তাহলে আপনার বাড়িতে নেগেটিভ এনার্জি বৃদ্ধি পেতে থাকবে। ফলে আপনার কোনো কাজই সঠিকভাবে সম্পূর্ণ হবে না।

(৩)”দই “:-এমন একটি খাদ্যবস্তু যেটা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। কিন্তু তাই বলে যদি আপনি রাতে দই খান তাহলে সেটা স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকারক। সেই কারণে রাতে অন্য কাউকে দই খেতে দিলে ও তা আপনার পক্ষে অশুভ হতে পারে। তাই রাতে কাউকে দই দান করবেন না।

(৪)”অর্থ” শাস্ত্রীয় মতে বিশ্বাস করা হয় যে সূর্যাস্তের সময় মা লক্ষী পৃথিবীতে ভ্রমণ করেন। ফলে এই সময়টি মা লক্ষীর মর্তে আগমনের সময়। তাই সূর্যাস্তের পরে কখনো বাড়ি থেকে কাউকে অর্থ দেবেন না।

(৫) দুধ :- সুর্যাস্তের পরে কখনোই দুধ দান করবেন না। যদি তা করেন তাহলে আপনার বাড়ির শুক্র এবং চন্দ্র গ্রহ দুর্বল হতে থাকবে। ফলে আপনার উপর মানসিক চাপ বাড়তে থাকবে। তাই সন্ধেবেলা অর্থাৎ সূর্যাস্তের পর কাউকে দুধ দান করবেন না।

সূর্যাস্তের পর এই পাঁচটি নিয়ম মেনে চলুন অবশ্যই আপনার এবং আপনার পরিবারের সমস্ত বি’পদ আ’পদ কেটে যাবে।

About admin

Check Also

“যারা হিজড়া বলে মজা করত তারাই এখন তাকে স্যালুট করে”, কঠোর পরিশ্রমে শিবন্যা আজ সাব-ইন্সপেক্টর

যদিও দেশের সর্বোচ্চ আদালত সমকামিতাকে মর্যাদা দিয়েছে কিন্তু এলজিবিটি কিউ আজ পর্যন্ত সমাজে সমতার মর্যাদা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *