Breaking News

গালওয়ানে শহী’দ কর্নেল সন্তোষ বাবুকে বিশেষ শ্রদ্ধাঞ্জলি দিতে তেলেঙ্গানা সরকার নিলো নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত

সন্তোষ বাবুর ব্রোঞ্জের মূর্তি তৈরি করার উদ্যোগ চলেছে তেলাঙ্গানা সরকার। ১৫ জুন ভারত-চীন সীমা’ন্তে গালওয়ান উপত্যকায় চীনা সে’নার সঙ্গে সংঘ’র্ষে মৃ’ত্যু হয় ১৬ বিহার রেজিমেন্টের কম্যান্ডিং অফিসার কর্নেল সন্তোষ বাবুর। তার সঙ্গে আরও ১৯ জন জওয়ান শহী’দ হন। শহী’দ সন্তোষ বাবুর স্ত্রী কে চাকরি দেওয়ার ঘোষণা করেছিল তেলেঙ্গানা সরকার।

শহীদের পরিবার কে দেওয়া প্রতিশ্রুতি পালন করতে গত সোমবার দুপুর নাগাদ শহী’দ কর্নেল সন্তোষ বাবুর সূর্যপেটের বাড়িতে গিয়েছিলেন তেলাঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী, কে চন্দ্রশেখর রাও। সেখানে গিয়ে শহী’দ কর্নেল এর স্ত্রীর হাতে চার কোটি টাকার চেক তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী। এখানেই শেষ নয়।

কর্নেলের পিতা মাতার হাতেও এক কোটি টাকার চেক পৃথকভাবে তুলে দেন তিনি।এইভাবে শহী’দ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী।যদিও টাকার অংকে জীবনের ক্ষ’তিপূরণ এর পূর্ণতা দান করা সম্ভব নয়। তবুও বাড়িতে কর্মরত ব্যক্তি হিসেবে একমাত্র কর্মরত ছিলেন।তাই তেলেঙ্গানা সরকার এগিয়ে এসেছেন সাহায্যের জন্য।

হায়দ্রাবাদের বানজারা হিলসে ৭১১ বর্গ গজের একটি বাড়ির জায়গার প্রয়োজনীয় কাগজ পত্রও দেওয়া হয়েছে কর্নেল সন্তোষ বাবুর পরিবারকে।তারই সঙ্গে সূর্যপেট শহরের জেলা আদালতের চৌমাথায় বীর শহী’দ কর্নেল সন্তোষের ব্রোঞ্জের মূর্তি স্থাপন করা হবে বলে জানা গিয়েছে। ওই রাস্তাটির নাম দেওয়া হবে হবে কর্নেল সন্তোষ মা’র্গ।এইভাবেই তেলেঙ্গানা রাজ্য তথা দেশের শহী’দ সন্তোষ বাবুর নাম জনে জনে স্মরণ করবেন।

About admin

Check Also

“যারা হিজড়া বলে মজা করত তারাই এখন তাকে স্যালুট করে”, কঠোর পরিশ্রমে শিবন্যা আজ সাব-ইন্সপেক্টর

যদিও দেশের সর্বোচ্চ আদালত সমকামিতাকে মর্যাদা দিয়েছে কিন্তু এলজিবিটি কিউ আজ পর্যন্ত সমাজে সমতার মর্যাদা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *