Breaking News

মাঠে লাঙ্গল দেওয়ার পর এবার নিজেই মাঠে নেমে ধান চারা রোপণ করে ভিডিও পোস্ট সালমান খানের

কৃষিকাজের প্রতি তাঁর প্রতিশ্রুতি প্রদর্শন করতে সালমান খান ইনস্টাগ্রামে বেশ কিছু ছবি পোস্ট করেছেন। নিজের ধানের ক্ষেত থেকে কয়েকটি ছবি ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার নেওয়ার পরে, অভিনেতা নিজের পরিশ্রমকে আরও একধাপ এগিয়ে নিয়ে গেলেন। মাঠের লাঙল চালানোর জন্য ট্র্যাক্টারে চড়ে নিজের একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন নিজের ইনস্টাগ্রামে। ভিডিওতে দেখা গেছে যে, তিনি তার খামারে শর্টস এবং একটি টি-শার্ট পরে কঠোর পরিশ্রম করছেন।

এরপর তিনি নিজেই মাঠে নেমে ধানের বীজ রোপন করতে দেখা গেল সলমন খানকে। বিশেষ বান্ধবী ইউলিয়া ভন্তুরের সঙ্গে একযোগে মাঠে নেমে কাজ করতে দেখা গেল সলমনকে। শুধু তাই নয়, ধানের চারা রোপন করে,  শ্যালোর জলে হাত ধুয়ে সেখানেই বিশ্রাম করতে দেখা যায় বলিউড ভাইজানকে। সলমন খানের ওই ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আসতেই তা ভাইরাল হয়ে যায় হু হু করে।

অভিনেতা সালমান খান এই লকডাউনে কিছু দিনের জন্য পাভেলের নিজের ফার্মহাউসে রয়েছেন এবং সেখানকার কার্যক্রমের নিয়মিত আপডেট ভাগ করে নিচ্ছেন নিজের ভক্তদের সঙ্গে। ইদানিং তিনি কৃষক সমাজকে উৎসর্গ করে পোস্ট করে ভক্তদের মন জয় করে নিয়েছেন। ভিডিওটি পোস্ট করার পাশাপাশি ক্যাপশনে সালমান খান লিখেছেন যে, “ফার্মিং”।

এই ভিডিও ক্লিপটি পোস্ট করে সালমান খান প্রচুর সংখ্যক মানুষের ভালবাসা এবং প্রশংসা পেয়েছেন। একজন ওই পোস্টের কমেন্টে লিখেছেন, ” তিনি ভূমিতে নেমে এসেছেন। তিনি কৃষকদের মূল্য জানেন। তিনি দেশের মূল্য জানেন। কৃষকরা আমাদের দেশের হৃদস্পন্দন। মহামা’রী চলাকালীন অবস্থায় তিনি কৃষকদের নিয়ে প্রচার ও প্রশংসা করছেন। তিনি পুরনো কথার পুনরাবৃত্তি করেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী লাল বাহাদুর শাস্ত্রী। জয় জওয়ান জয় কিশান। ”

লকডাউন শুরু হতেই মুম্বইয়ের বাড়ি ছেড়ে পানভেলের বাগান বাড়িতে চলে যান সলমন খান। পরিবারের বেশ কয়েকজন সদস্যের সঙ্গে সেখানে সলমনের সঙ্গী হন ইউলিয়া ভন্তুর, জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজরা। তবে প্রথম পর্বের লকডাউন শেষ হতেই পানভেলের বাগান বাড়ি ছেড়ে মুম্বইতে চলে যান। তবে জ্যাকলিন পানভেলের বাগান বাড়ি ছেড়ে চলে গেলেও, সলমনের সঙ্গে সেখানে রয়ে যান ইউলিয়া। বাগান বাড়িতে থেকেই সেখান থেকে একের পর এক ছবি এবং ভিডিয়ো শেয়ার করেন ইউলিয়া। সলমনের বিশেষ বান্ধবীর সেই পোস্ট প্রকাশ্যে আসতেই ভাইরাল হয়ে যায়।

অন্য একজন মন্তব্য করেছিলেন যে, “অনেক মানুষ ভারতীয় সিনেমায় আসেন তবে সালমান খান একেবারেই অন্যরকম, তিনি সত্যিকারের নায়ক।অন্য তারকার স্রেফ ভক্ত আছেন। # সালমান খান ভক্ত।আমি সালমান খানকে নিয়ে গর্বিত। তিনি সব থেকে জনপ্রিয় মেগাস্টার।”এর আগে সালমান খান জমিতে চাষ করার এবং কর্দমাক্ত ছবি নিজের ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন। তার অগণিত ভক্ত সেই ছবি লাইক করার পাশাপাশি কমেন্ট করে ভালোবাসা জানিয়েছে। শুটিং না থাকার কারণে এই সময় কৃষিকাজে মাঠে নামায় অনেকেই তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন।

তবে বেশ কিছুজন তার সেই ছবিকে হাসির খোরাক বানিয়ে দিয়েছেন এক লহমায়। অনেকেই বলেছে যে, সালমান হাতে কাদা মাখেননি কিন্তু গায়ে কাদা মেখেছেন। তবে সেই সব আপত্তিকর মন্তব্য কানে না নিয়ে, একেবারেই উপেক্ষা করে আবারও সালমান এই ভিডিও পোস্ট করলেন। অগ্রাধিকার দিলেন নিজের ভক্তদের ভালোবাসাকে। কিছুদিন পরেই আসছে সালমান খানের পরবর্তী সিনেমা “রাধে-দা মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই”। সালমানের ভক্তরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে এই সিনেমা দেখার জন্য।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *