Breaking News

পুরো রোবটের মত মিউজিকের প্রত্যেকটা বিটের পারফেক্ট নাচের স্টেপ, এই গরমে পিপিই পরেই ডিউটির ফাঁকে ডাক্তারের নাচের ভিডিও দুরন্ত গতিতে ভাইরাল

চলতি বছরটা আমাদের অনেক শিক্ষা দিয়ে গেল। অনেক শিক্ষার মধ্যে একটি শিক্ষা হলো ডাক্তার,নার্স এবং পুলিশকে সম্মান করা। যেভাবে তারা দিনরাত এক করে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে তা সত্যিই প্রশংসার যোগ্য। বিশেষত প্রত্যেক জেলা শহর গ্রামাঞ্চলের ডাক্তাররা নিজেদের প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে যেভাবে রোগীদের সেবা করে চলেছেন, এককথায় তা অনবদ্য।
রোগীদের সেবা করতে করতে বহু চিকিৎসক এবং আক্রান্ত হয়ে পড়ছেন এই মহামা’রী কবলে। কিন্তু তাও কোনভাবেই তারা নিজেদের মানসিক শক্তি হারিয়ে ফেলছেন না। তাদের দেখে সুস্থ হয়ে উঠছেন আ’ক্রান্ত মানুষেরা।

এই মহামা’রী যতটা শারীরিক অবস্থার ওপর প্রভাব ফেলছে, তার থেকেও বেশি প্রভাব ফেলছে মানুষের মান’সিক অবস্থার উপর। এই মহামা’রী মানুষকে মানুষের থেকে আলাদা করে দিচ্ছে। সে যাত্রাতেও প্রিয়জনের কাছে যাওয়া যাচ্ছে না, এতটাই ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি। কোনো পাড়ায় বা শহরে কেউ করোনা আক্রান্ত হলে, এতটাই খারাপ ব্যবহার করছেন তার আশেপাশের মানুষেরা, তাতে আক্রা’ন্ত রোগী সুস্থ হবার বদলে উল্টে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন।তাই যেকোনো ভাবে আক্রান্ত রোগীদের মানসি’ক জোর বাড়ানোর চেষ্টা করে চলেছেন চিকিৎসকরা। চিকিৎসকদের এমনই মনোবল বাড়ানোর একটি ভিডিও সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল হলো। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, একজন চিকিৎসক হাসপাতালের ভেতরে নাচে মত্ত।এই অভিনব পন্থায় তিনি সাধারণ মানুষকে হেরে যাওয়ার হাত থেকে উদ্ধার করছেন।

মহামা’রী বিরু’দ্ধে এতদিন লড়াই করেও ক্লান্ত না হয় অনবরত সেবা করে যাচ্ছেন তারা। চিকিৎসক এবং নার্সদের প্রতিনিয়ত সেবায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন বহু মানুষ। অদূর ভবিষ্যতে যখন আমাদের পৃথিবী সুস্থ হয়ে উঠবে,তখন অবশ্যই সবার আগে আমাদের ধন্যবাদ জানানো উচিত এই চিকিৎসক এবং নার্সদের। এই যোদ্ধারা যদি অনবরত যু’দ্ধ না করে যেতেন, তাহলে হয়তো আমাদের পৃথিবী কোনদিন সুস্থ হয়ে উঠত না। চিকিৎসকের এই অভিনব পন্থা সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল হতেই পৌঁছে গেছে বিশ্ববাসীর কাছে। প্রত্যেকে চিকিৎসককে বাহবা জানিয়েছেন তার কর্মের জন্য।সকলেরই ধারণা, এইভাবে একে অপরের যদি পাশে দাঁড়ানো যায়, তবে অদূর ভবিষ্যতে আমাদের যু’দ্ধ জয় করা সম্ভব হবে।

https://www.facebook.com/198230903525774/posts/3919991104683050/

About admin

Check Also

শারীরিক ভাবে প্রতিবন্ধী হয়েও 60 জন দরিদ্র শিশুকে বিনামূল্যে শিক্ষাদান করেন ইনি, শুধু লাঠিতে ভর করে টিউশন পড়াতে যান।

সমাজে নিজের যোগদান দেওয়ার কথা উঠলেই বেশিরভাগ মানুষই কোনো না কোনো বাহানায় পিছু হাটতে চান। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *