Breaking News

পা অচল, বয়সের বাধ্যক্য ঘিরে ধরেছে, তবু নৌকা নিয়ে নদী থেকে বজ্র পদার্থ নিকেশ করে পরিবেশের স্বচ্ছতাকে বজায় রাখতে বদ্ধপরিকর রাজাপ্পন

ভারতবর্ষের খুব কম মানুষই আছেন যারা স্বচ্ছ ভারত অভিযানের নিজেদের শামিল করে ভারতবর্ষকে পরিষ্কার রাখতে চান। ভারতের প্রধানমন্ত্রী যতই স্বচ্ছ ভারত অভিযান শুরু করুক না কেন, ভারতবর্ষের বেশিরভাগ মানুষই নিজে থেকে সচেতন নন। নিজেরা সচেতন না হলে কখনোই একটি দেশকে সুন্দর করে তোলা যায় না।কিন্তু কিছু কিছু মানুষ আছেন যারা এখনো দেশকে সুন্দর এবং পরিষ্কার দেখতে চান। তাদের মধ্যে একজন হলেন কেরলের এনএস রাজাপ্পান।

শারীরিকভাবে প্রতিবন্ধকতার শিকার হলেও মানসিকভাবে তিনি যে কত উদার মনের মানুষ তা তার কাজ দেখলেই বোঝা যায়। গত ৬ বছর ধরে তিনি লাগাতার পরিষ্কার করে চলেছেন ভেম্বানাদ লেক কে। এই বৃদ্ধ এর বয়স ৭৯ বছর। তার জীবনে একমাত্র লক্ষ্য ভারতের সবচেয়ে দীর্ঘতম হ্রদ ভেম্বানাদ, এই দীর্ঘতম হ্রদ কে তিনি পরিষ্কার করে রাখবেন।ছোটবেলায় রাজাপ্পান পোলিও আক্রান্ত হয়েছিলেন। পোলিও আক্রান্ত হওয়ায় তিনি খুইয়েছেন তার দুই পা। তবুও হাতের জোরেই তিনি নৌকা চালান।অদম্য মনোবলের জোরে সাফ করে চলেন ভেম্বানাদ কে।

এই দীর্ঘ বিশাল পরিষ্কার করে যে প্লাস্টিকের বোতল তিনি সংগ্রহ করেন, সেগুলি বিক্রি করে যা টাকা আছে তা দিয়ে নিজের পেট চালান রাজাপ্পান নামের এই ব্যক্তিটি।
দীর্ঘ লকডাউন এরপর এই যদি আর তেমন প্লাস্টিক পরেনা। তাই যে প্লাস্টিক বোতল বিক্রি করে নিজের পেট ভরাতেন বৃদ্ধ, সেই ইনকামে এবার টান এসেছে।কিন্তু তাতেও তার অমলিন হাসিতে একটুও ছেদ পড়েনি।রাজাপ্পান একগাল হাসি নিয়ে বলেছেন,”আমি খুব খুশি যে জল এখন পরিষ্কার”। রাজাপ্পানের এই ভিডিও এখন সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল। তার ভিডিও দেখে অত্যন্ত খুশি হয়েছে নেটিজেনরা। প্রত্যেকে প্রশংসায় হয়েছেন এই ব্যক্তির।তার সুস্থ এবং দীর্ঘ জীবনের কামনা করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ার ইউজাররা।

About admin

Check Also

শারীরিক ভাবে প্রতিবন্ধী হয়েও 60 জন দরিদ্র শিশুকে বিনামূল্যে শিক্ষাদান করেন ইনি, শুধু লাঠিতে ভর করে টিউশন পড়াতে যান।

সমাজে নিজের যোগদান দেওয়ার কথা উঠলেই বেশিরভাগ মানুষই কোনো না কোনো বাহানায় পিছু হাটতে চান। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *