Breaking News

যে ভাবে ১২ কিলোমিটার তাড়া করে খু’নিকে শনা’ক্ত ধরে ফেললো, এবং পু’লিশের কাজে সাহায্য করলো এই বি’স্ময়কর কুকুরটি, তার কারন জানলে চ’মকে যাবেন

এক স্নি’ফার ডগ পু’লিশের সাহায্যে এল। ঘট’নাটি ঘটেছে কর্ণাটকে। আসা’মিদের সন্ধান করে গ্রে’ফতার করতে একাই একশো ওই স্নি’ফার ডগ। ১২ কিলোমিটার রাস্তা দৌড়ে থেমে যায় আসা’মির বাড়ির সামনে।এই খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত হতে না হতেই কার্যত নায়কের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে ওই স্নি’ফার কুকুরটি। কর্ণাটকের বেঙ্গালুরু থেকে ২০০ কিলোমিটার দূরে দেভা’ঙ্গেরে জেলায় ঘটনাটি ঘটেছে।

জানা গিয়েছে যে, টাকার লে’নদেন নিয়ে দুই ব্যক্তির মধ্যে বিত’র্কে জ’ড়িয়ে পড়ে। একজন অন্যজনের থেকে টাকা ধার নিয়েছিল। তাদের মধ্যে একজনের কাছে পূর্বে করা অপরা’ধের কারণে থা’নায় ছিলেন। সেই সময় সেখান থেকে তিনি একটি ব’ন্দুক চু’রি করেন। ওই ব্যক্তি সঙ্গে সঙ্গে সেই রি’ভল’ভার বের করে আনে এবং অন্য ব্যক্তির দিকে গু’লি করেন। ব’ন্দু’কের গু’লি লেগে ওই ব্যক্তি সেখানেই মা’রা যান।

গু’লিবি’দ্ধ ওই ব্যক্তির নাম চন্দ্র নায়ক। অ’ভিযু’ক্তের নাম চেতন। চেতনের বিরু’দ্ধে পু’লিশের কাছে উপযুক্ত প্রমাণ রয়েছে। কাশিপুর নামক এক জায়গায় ওই ব্যক্তি গা ঢাকা দেয়। চন্দ্র নামক এক ব্যক্তির থেকে ১.৭ লক্ষ টাকা ধা’র নিয়েছিল। সেই টাকা চাইতে গেলে চন্দ্র নামক ওই ব্যক্তিকে চেতন সঙ্গে সঙ্গে গু’লি করে। খু’নের ঘটনাটি ঘটার প্রায় এক সপ্তাহ পরে তদ’ন্তের কারণে

তুঙ্গা নামক এক স্নি’ফার কু’কুরকে আনা হয়। কর্ণাটক পু’লিশের ডগ স্কো’য়াডের জনৈক সদস্য সে।
বেঙ্গালুরু পু’লিশের স্নি’ফার কুকুর তুঙ্গা আসা’মির গ’ন্ধ শু’কে তাকে খুঁজে বের করে। আসা’মীকে ধ’রতে টানা তিন ঘণ্টা ধরে দৌড়াচ্ছে কু’কুরটি।অবশে’ষে একটি বাড়ির সামনে নিয়ে এসে দাঁড় করায় পু’লিশদের। ওই বাড়িতেই লুকিয়েছিল অপরা’ধী। ওই কুকুরের চেষ্টায় আসা’মীকে ধ’রতে সক্ষম হয় পু’লিশ। এমনকি ওই অপরা’ধী নিজের দো’ষ স্বী’কার করে নিয়েছে। পশু বিশেষ’জ্ঞদের মতে একজন উপযুক্ত প্র’শিক্ষণ প্রাপ্ত স্নি’ফার ডগ টানা ৪ থেকে ৫ কিলোমিটার দৌড়তে পারে।

কিন্তু এই কুকুরটি দৌড়েচ্ছে টানা ১২ কিলোমিটার।কর্ণাটক পু’লিশের ডি’জি অমিত কুমার জানালেন, ১৭ জুলাই রীতিমতো অনুষ্ঠান করে মালা পরিয়ে তুঙ্গা নামক ওই কুকুরটিকে পুরস্কৃত করা হয়েছ।জে’লার পু’লিশ সুপার হনুম’ন্ত রায়ের বক্তব্য, তুঙ্গা ৫০ টি হ-ত্যা মা’মলা এবং ৬০ টি চু’রির সমাধানে সহায়তা করেছে। কর্নাটকের অতিরি’ক্ত ডিজিপি অ’মর কুমার পান্ডে বলেছেন, “সে আমাদের নায়ক, আমি তাকে সম্মান জানাতে সেখানে গিয়েছিলাম”।

About admin

Check Also

শারীরিক ভাবে প্রতিবন্ধী হয়েও 60 জন দরিদ্র শিশুকে বিনামূল্যে শিক্ষাদান করেন ইনি, শুধু লাঠিতে ভর করে টিউশন পড়াতে যান।

সমাজে নিজের যোগদান দেওয়ার কথা উঠলেই বেশিরভাগ মানুষই কোনো না কোনো বাহানায় পিছু হাটতে চান। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *