Breaking News

সোশ্যাল মিডিয়ায় জানালেন “ড্যাডি” র কথা! সন্তানের বাবাকে নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী!

এন্টারটেনমেন্ট জগতের সাথে যুক্ত প্রতিটি মানুষ জীবনের কোন না কোন সময়ে বিতর্কে জড়িয়েছেন। সম্প্রতি এই বিতর্কের লিস্টে নাম উঠে এসেছে টলিউডের বিখ্যাত অভিনেত্রী নুসরাত জাহানের। এন্টারটেনমেন্টের এই দুনিয়ায় এর আগে অনেকেই সিঙ্গেল মাদার হয়েছেন। কিন্তু কাউকে নিয়ে এত ট্রোল হতে দেখা যায়নি। নুসরাত জাহানের মা হওয়ার খবর সামনে আসার প্রথম দিন থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত একইভাবে ট্রোল হয়ে চলেছেন তিনি।

অনেকেই যখন পিতৃপরিচয় ছাড়া নিজের সন্তানকে পৃথিবীর আলো দেখানোর সাহসিকতার জন্য অভিনন্দন জানিয়েছেন তেমনি অনেকে বলেছেন এই সবই পাবলিসিটি স্টান্ট। তাদের মতে বিবাহিত হওয়ার পরেও অন্য পুরুষের সাথে শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে তারই সন্তানকে পৃথিবীর আলো দেখানোতে কোন বীরত্ব নেই। তার ওপর অগ্নিসাক্ষী করে সাত পাকে বাঁধা পড়া সম্পর্ককে তিনি এক লহমায় সহবাসের নাম দিয়েছেন।

তার এই ধরনের কার্যকলাপে ক্ষুব্ধ অনেকেই। এই সবের মধ্যেই অনেকে সাংসদ অভিনেত্রীর চরিত্র নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণে মগ্ন। এরকমই এক পরিস্থিতিতে নুসরাত জাহান জন্ম দিয়েছেন তার পুত্র সন্তানের। সন্তান জন্ম দেওয়ার পর থেকেই অনেকেই উদগ্রীব হয়েছেন বাচ্চার বাবার নাম জানতে। অন্তঃসত্বা অবস্থায় তার পাশে সর্বদা ছিলেন অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত। তাই অনেকেই মনে করছেন যশই নুসরাতের ছেলের বাবা।

এই বিষয় নিয়ে প্রশ্ন করা হলে যশ কেবল জানিয়েছিলেন মা ও সন্তান উভয়েই সুস্থ আছে। বেসরকারি হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার পর একটি ছবি শেয়ার করেছেন নুসরাত। সন্তানের মা হওয়ার পর তার যে গ্ল্যামার কমেনি বরং বেড়েছে তা সেই ছবিতে স্পষ্ট। ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে নুসরাত সাদা-কালো ডোরাকাটা একটি পোশাক পরেছেন এবং ক্যাপশনে ছবি তোলার ক্রেডিট ড্যাডি কে দিয়েছেন। এই ড্যাডি যে তার সন্তানের বাবা তা বুঝতে অসুবিধা হয়নি কারোরই। স্পষ্টতই বোঝা যাচ্ছে হয়তো যশই এই ছবিটি তুলেছেন।

About Web Desk

Check Also

সিগারেটের ধোঁয়া থেকে গোল গোল আংটির মত রিং করে মহিলা শিম্পাঞ্জি, দিনে তার অন্তত 40 টা মত সিগারেট লাগে। তার এই নেশার কারণ জানলে চমকে যাবেন

সিগারেট খাওয়ার নে_শা ভুল, এটা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষ_তি_ক_র তা সবাই জানে। কিন্তু তারপরেও মানুষ ধূ_ম_পা_ন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.