Breaking News

বাড়িতে এই কাজগুলো কখনোই মেয়েদের দিয়ে করাবেন না, মা লক্ষ্মী চঞ্চল হয়, আসতে পারে দারিদ্রতা।

বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে গৃহস্থের অন্দরে সুখ-সমৃদ্ধি আপনা থেকেই আসে না। তার জন্য় বেশ কিছু নিয়ম মেনে চলতে হয়। আর এই নিয়মগুলি যদি কেউ মানতে না পারেন, তাহলেই কিন্তু বিপদ!কী বি’পদ! সেক্ষেত্রে একের পর এক খারাপ ঘটনা ঘটার আশ’ঙ্কা তো বাড়েই, সেই সঙ্গে মারাত্মক অর্থনৈতিক ক্ষ’তি হয়। ফলে গৃহস্থে দারিদ্রতার ছোঁয়া লাগতে সময় লাগে না।

তাই তো বলি বন্ধু, সুখে সান্তিতে যদি থাকতে চান, তাহলে ভুলেও বাড়ির মহিলাদের দিয়ে এই কাজগুলি করাবেন না যেন! আর বো’ল্ডস্কাইয়ের মহিলা পাঠকদের মধ্যে যারা এই প্রবন্ধটি পড়ছেন, তারা খেয়াল রাখবেন পরিবারের সদস্যদের উন্নতির কথা ভেবে ভুলেও এই কাজগুলি করতে যাবেন না যেন!এক্ষেত্রে যে যে বিষয়গুলি মাথায় রাখতে হবে, সেগুলি হল

১. বাড়ি-ঘর পরিষ্কার করা:বাস্তু বিশেষজ্ঞদের মতে সূর্যদয়ের পরে ভুলেও মহিলাদের বাড়ি-ঘর পরিষ্কার করা উচিত নয়। কারণ এমনটা করলে মা লক্ষী বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। ফলে নেগেটিভ এনার্জির প্রকোপ এতটা বেড়ে যায় যে মারাত্মক অর্থনৈতিক ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়। এখন প্রশ্ন হল যাদের কোনও উপায় নেই, তারা কী করবেন? সেক্ষেত্রে মহিলারা ঘর-দোর পরিষ্কার করতেই পারেন, তবে তা করতে হবে সূর্যদয়ের আগে, পরে নয়!

২.স্নান করার নিয়ম:খেয়াল করে দেখবেন আমাদের মায়েরা সারা দিন ধরে বাড়ির কাজ করেন। তারপর সব সেরে বেলা ৩-৪ টে নাগাদ স্নান করে দুপুরের খাবার খান। এমনটা করা একেবারেই উচিত নয়। কারণ বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে সকাল সকাল ঘর-দোর পরিষ্কার করে, তার পরপরই মহিলাদের স্নান সেরে নেওয়া উচিত। কারণ এমনটা করলে পরিবারে সুখ-শান্তি বজায় থাকে। সেই সঙ্গে মা লক্ষ্মী প্রসন্ন হন। ফলে অর্থনৈতিক ক্ষতি তো হয়ই না, উল্টে পকেট ভর্তি টাকার মালিক হয়ে ওঠার স্বপ্ন পূরণ হয়। তাই মা, পরিবারের সমৃদ্ধির কথা ভেবে দয়া করে দেরি করে স্নান করবেন না যেন!

৩. রান্না করার সময় খেয়াল রাখবেন:এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে পরিবারের জন্য রান্না করার অর্থ হল ভগবানের জন্য রান্না করা। তাই তো পরিবারিক সমৃদ্ধির পথ প্রশস্ত করতে সকাল সকাল স্নান করে, পুজো সেরে তারপর রান্না শুরু করা উচিত। কিন্তু খেয়াল করে দেখবেন বেশিরভাগ বাঙালি বাড়িতেই এই নিয়ম মানা হয় না। আমাদের মায়েরা রান্না সারার পর গিয়ে স্নান সারেন, যা একেবারেই করা উচিত নয়। তাই এবার থেকে ভুলেও এমনটা করবেন না যেন! কী কারণে এই উপদেশ দেওয়া হচ্ছে, তা নিশ্চয় বুঝতে পেরেছেন!

৪. খাবার খাওয়ার নিয়ম:শাস্ত্র মতে মা লক্ষ্মীর পুজো করে, তাঁকে প্রসাদ নিবেদন করার পর বাড়ির মহিলাদের খাবার খাওয়া উচিত। কারণ এমনটা না করলে মা লক্ষ্মী খুব রেগে যান। ফলে সুখ-সমৃদ্ধির ঝাঁপি খালি হতে সময় সাগে না। এই কারণেই তো সকাল সকাল উঠে স্নান সেরে পুজো করে নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়ে থাকে মহিলাদের। কিন্তু কজনই বা এই নিয়ম মেনে চলেন বলুন!

About admin

Check Also

প্রত্যেক রবিবার এই নিয়মগুলো মেনে সূর্যদেবের পুজো করুন, পূরণ হবে সমস্ত মনোবাসনা

রবিবার সূর্য দেবতার নামে পূজো অর্চনা করা হয়। রবিবারের সূর্য দেবতার আরাধনা করা হয় তার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *